হৃদরোগের হোমিওপ্যাথিক চিকিৎসা।

হৃৎরোগঃ নানা কারনে এই পীড়া হইয়া থাকে।অতিরিক্ত চা, কফি, মদ, ধুমপান, অত্যন্ত মানসিক উত্তেজনা, ত্রুদ্ধ, ভয়, শোক, অতিরিক্ত পরিশ্রম, অজির্ণ, রক্ত শুন্যতা প্রভৃতি কারণে এই পীড়া হইতে পারে।হৃৎরোগের বিভিন্ন প্রকারভেদ রয়েছে।কিন্তু হোমিওপ্যাথিক চিকিৎসা একটি লক্ষণ ভিত্তিক চিকিৎসা।তাই রোগের নাম যাই হোক লক্ষণ বিবেচনায় সঠিক ঔষধ নির্বাচন করিতে পারিলে রোগ আরোগ্য হবে।

হৃদরোগের চিকিৎসায় ব্যবহৃত হোমিওপ্যাথিক ঔষধ সমুহের লক্ষণ ভিত্তিক আলোচনা ঃ

অর্জুনাঃ ইহা আমাদের বাংলাদেশীয় ঔষধ।নানা প্রকার হৃদরোগে ইহা ব্যবহার হইতেছে।হৃদস্পন্দন, হৃৎপিন্ডের বেদনা, বুক ধড়ফড় করা, দুর্বলতায় ইহা একটি উৎকৃষ্ট ঔষধ।
ফ্যাসিওলাসঃ অত্যান্ত বুক ধড়ফড়, নাড়িরগতি দ্রুত, হৃৎপিন্ডের চারিধারে বেদনা।দীর্ঘ নিঃশ্বাস ফেলে।হৃৎপিন্ডের রোগে ইহা উপকারী।
কনভ্যালেরিয়াঃ হৃৎপিন্ডের নানা পীড়া, সামান্য পরিশ্রমে বুক ধড়ফড়ানি।ব্যায়াম কালীন অত্যন্ত বুক ধড়ফড় করে, ধুমপান জনিত কারণে বুক ধড়ফরানিতে এই ঔষধ উপকারী।
ক্র্যাটিগাসঃ হৃৎপিন্ডের নানা পীড়ায় বহু প্রচলিত একটি শ্রেষ্ঠ ঔষধ।নানা প্রকার হৃৎপিন্ডের পীড়ায় বুক ধড়ফড়ানিতে ইহার সমতুল্য ঔষধ খুব কমই আছে।
ডিজিটেলিসঃ হৃৎপিন্ডের দুর্বলতা, সামান্য নাড়াচড়া করিলেই হৃৎপিন্ডের ক্রিয়া বন্ধ হইয়া যাইতে চায়।নাড়ি সবিরাম।৩য়, ৫ম বা ৭ম নাড়ির স্পন্দন বিলুপ্ত।বুকে সুচ ফোটানো ব্যাথা।বাম পার্শ্বে শুইতে অক্ষমতা।বুক ধড়ফড়ানি, শ্বাস কষ্ট ইত্যাদি লক্ষণে ডিজিটেলিস উপযোগী।
স্পাইজেলিয়াঃ নতুন বা পুরাতন উভয় প্রকার হৃৎপিন্ডের পীড়ায় এই ঔষধ উপকারী।অত্যন্ত জোরে জোরে বুক ধড়ফর করে।হৃৎপিন্ডে সুচ ফুটানো ব্যাথা,বাম দিকে চাপিয়া শুইলে বুক ধড়ফরানি বাড়ে।
ক্যালাডিয়মঃ ধুমপান জনিত কারণে বুক ধড়ফরানিতে ইহা অতি উৎকৃষ্ট ঔষধ।এই ঔষধ কিছু অধিক দিন সেবন করিলে ধুমপানের আকাংখা দুর হয়।
এছারাও হৃৎপিন্ডের পীড়ায় লক্ষণ বেধেঃ একনাইট, ক্রোমিয়াম, এন্যাকার্ডিয়াম, এপিস, আরেজন্টামনাইট, আর্সেনিক, অরামমেট, বেন্জোয়িক এসিড, ব্রোমিয়াম, ব্রায়োনিয়া, ক্যাক্টাসগ্র্যান্ডি, ক্যালকেরিয়াকার্ব, কলচিকাম, কনভ্যালেরিয়া, এডোনিসভার্ণালিস, লাইকোপাস, কলিনসনিয়া, জেলসিয়ামাস, এপোসাইনাম, ক্যালিকার্ব, ক্যালমিয়া, রাসটক্স, ফাইটোলক্কা, ল্যাকেসিস, ক্যালিআয়োড, ন্যাজা, লিডাম, লিলিয়ামটিগ্রিনাম, লিথিয়ামকার্ব, নেট্রামমিউর, নাক্সমস্কেটা, নাক্সভূমি, ফস্ফরাস, পালসেটিলা, সালফার, ভিরেট্রাম ভিরিডি, জিঙ্কাম ইত্যাদি সদৃশ ঔষধ ব্যবহৃত হয়।

হৃদরোগের চিকিৎসায় ব্যবহৃত বাইওকেমিক ঔষধসমুহঃ 

ক্যালকেরিয়া ফসঃ রক্ত শুন্য দুর্বল রোগীদের হৃৎপিন্ডের নানা প্রকার পীড়া।বুক ধড়ফরানি, হৃৎপিন্ডে বেদনা, শ্বাস কষ্ট ইত্যাদিতে ইহা উপযোগী।
ক্যালি ফসঃ স্নায়ুবিক দুর্বল রোগীদের হৃৎস্পন্দন থামিয়া থামিয়া হয়।অল্পেতেই উত্তেজিত।সিড়ি বাহিয়া উপরে উঠিতে বুক ধড়ফড় করে,শ্বাস কষ্ট বৃদ্ধি পায়।
হৃৎস্পন্দন বা নাড়ির গতি দেখে সদৃশ ঔষধ নির্বাচনঃ
মন্দগতি নাড়ীঃ বার্বারিস, ক্যানাবিস ইন্ডিকা, জেলসিমিয়াম, ওপিয়াম, সিপিয়া, স্ট্রামোনিয়াম ইত্যাদি।
মন্দ ও অনিয়মিতঃ ক্যালমিয়া, ভিরেট্রাম ভিরেডি ইত্যাদি।
নাড়ী চাপ দিলেই দমিয়া যায় অর্থাৎ কোমলঃ এন্টিমটার্ট, কার্বভেজ, কুপ্রাম, ল্যাকেসিস, মিউরিয়েটিক এসিড,
ওপিয়াম,স্ট্রামোনিয়াম ইত্যাদি।
নাড়ী অত্যান্ত দুর্বলঃ আর্সেনিক অরাম, বার্বারিস, ক্যাস্ফার, কার্ব ভেজ, জেলসিয়াম, ল্যাকেসিস, ন্যাজা, নাক্স।
নাড়ী কম্পমানঃ এন্টিম টার্ট, ক্যালকেরিয়া কার্ব,স্পাইজেলিয়া ইত্যাদি।
নাড়ী অত্যান্ত ক্ষীণঃ একনাইট, আর্সেনিক, কার্ব ভেজ, কুপ্রাম, লরোসিরেসাস, সিকেল, সাইলিসিয়া, ভিরেট্রাম।
নাড়ী অত্যান্ত দ্রুতঃ একনাইট, এপিস, আর্নিকা, আর্সেনিক, অরাম মেট, বেলেডোনা, বার্বারিস, ব্রায়োনিয়া, কোনিয়াম, কুপ্রাম, জেলসিমিয়াম, গ্লোনইন, মার্কুরিয়াস, নেট্রাম মিউর, নাক্ষ ভূমিকা, ওপিয়াম, ফসফরাস পাইরোজেন, রাস টক্স, সিকেল, সাইলেসিয়া, স্পাইজেলিয়া, স্ট্যানাম, স্ট্র্যামোনিয়াম, সালফার, ভিরেট্রাম, জিঙ্কাম ইত্যাদি।
নাড়ী অত্যন্ত কঠিনঃ বেলেডোনা, বার্বারিস, ব্রাইওনিয়া, চেলিডোনিয়াম, হাইওসিয়েমাস, স্ট্র্রমোনিয়াম ইত্যাদি।
একবার দ্রুতগতি একবার মন্দগতিঃ একনাইট, এন্টিম ক্রুড, আর্সেনিক, চায়না, ল্যাকেসিস, নেট্রাম মিউর, ফসফরিক এসিড, সিকেলভিরেট্রাম ইত্যাদি।
থাকিয়া থাকিয়া বন্ধ হইয়া যায়ঃ চায়না,মার্কুরিয়াস,নেট্রাম মিউর,ফসফরিক এসিড,সিকেল ইত্যাদি।
পথ্য ও আনুষাঙ্গিক ব্যবস্হাঃ প্রত্যহ শীতল জলে স্নান,অল্প ব্যায়াম,খোলামেলা স্হানে বেড়ান হিতকর,কোন প্রকার উত্তেজক দ্রব্যাদি আহার চা,কফি,মদ,ঘৃত,ধুমপান,অধিক মসলাযুক্ত খাদ্য নিষেধ।পুষ্টিকর খাদ্য সামগ্রি আহার করিবেন।কোন প্রকার উত্তেজনায় কিংবা গোলমালে যাওয়া উচিৎ নয়।ক্রোদ্ধ হওয়া নিষিদ্ধ।
ডাঃ ইয়াকুব আলী সরকার,
বাইপাইল, সাভার, ঢাকা।
মোবাইল নং ০১৭১৬৬৫১৪৮৮।

গোঃ রেজিঃ নং ২৩৮৭৬।

Please follow and like us:
20

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *